‘পাকিস্তানকে বাংলাদেশ বানিয়ে দাও'

পাকিস্তানের ক্যাপিটাল টিভির এক টক শো-তে এক অতিথির কণ্ঠে শোনা গেল এমন আকুতি৷ নতুন প্রধানমন্ত্রী পাকিস্তান তেহরিক-ই ইনসাফের নেতা ইমরান খানের নেতৃত্বে কেমন এগোবে পাকিস্তান, সে নিয়ে ছিল আলোচনা৷

ডিফেন্স রিসার্চ ফোরাম নামের এক ফেসবুক পেজে রোববার আপলোড করা হয়েছে এক মিনিট ১৪ সেকেন্ডের এই ভিডিও৷

ভিডিওতে দেখা যায়, এক বক্তা বাংলাদেশের উন্নতির সাথে পাকিস্তানের তুলনা করছেন৷ তাঁকে বলাতে শোনা যায়, ‘‘পিটিআই যদি সবকিছু ঠিকঠাক করতে পারে, তাহলে বাংলাদেশের পর্যায়ে যেতেই আরো ১০ বছর লাগবে৷''

এ সময় তিনি ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের কথা উল্লেখ করে বলেন, ‘‘সেখানে ৩০০ বিলিয়ন ডলার আছে, অথচ আমাদের (পাকিস্তানের) স্টক এক্সচেঞ্জে আছে কেবল ১০০ বিলিয়ন ডলার৷''

রপ্তানি খাত বিষয়ে তিনি বলেন, ‘‘বাংলাদেশ ৪০ বিলিয়ন ডলারের এক্সপোর্ট করে৷ আমরা করি ২২ বিলিয়ন ডলারের৷''

সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেয়ার পর ইমরান খান পাকিস্তানকে সুইডেন বানানোর প্রতিশ্রুতি দেন৷ সে বিষয়েও কটাক্ষ করেন টক শো'র বক্তা৷ তিনি বলেন, ‘‘খোদার দোহাই, আমাদের বাংলাদেশ বানিয়ে দাও৷ আমরা ইমরান খানের ভক্ত হয়ে যাবো৷ পাঁচ না, দশ বছরে আমাদের বাংলাদেশ বানিয়ে দাও৷''

এডিকে/এসিবি 

পুরো নাম
ইমরান খান নামেই সবার কাছে পরিচিত তিনি৷ কিন্তু তাঁর পুরো নাম কি জানেন? আহমেদ খান নিয়াজী ইমরান হচ্ছে তাঁর পারিবারিক নাম৷
খেলা শুরু
১৯৫২ সালের ৫ অক্টোবর লাহোরে জন্মগ্রহণ করেন ইমরান খান৷ ছোটবেলা থেকেই খেলাধুলার প্রতি বিশেষভাবে আকৃষ্ট ছিলেন ইমরান৷ ১৯৬৮ সালে ষোল বছর বয়সে লাহোরের হয়ে সারগোরার বিরুদ্ধে প্রথম ফার্স্ট ক্লাস ম্যাচ খেলেন তিনি৷
জাতীয় দলে ডাক
ক্রিকেটের প্রতি ইমরান খানের আগ্রহ এবং লেগে থাকাই তাঁকে দ্রুত স্থান করে দেয় পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দলে৷ ১৯৭০ সালে যখন দলে ডাক পান, তখনও তাঁর পড়াশোনাই শেষ হয়নি৷
রাজনীতি
১৯৯৬ সালে রাজনীতিতে যোগ দেন ইমরান৷ গঠন করেন তেহরিক-ই-ইনসাফ পার্টি৷ গত নির্বাচনে দ্বিতীয় স্থানে থাকলেও এবার অন্যদের পেছনে ফেলে তাঁর দল উঠে এসেছে শীর্ষে৷
ব্যক্তিগত জীবন
শুধু খেলা বা রাজনীতি নয়, ব্যক্তি জীবনের নানা খবর দিয়েও বরাবরই সংবাদমাধ্যমের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন ইমরান খান৷ ৬৫ বছর বয়সে তৃতীয়বার বিয়ে করেন ইমরান৷ ভবিষ্যতবক্তা বুসরা মানেকার আগে ব্রিটিশ সেলিব্রেটি জেমিমা গোল্ডস্মিথ এবং পাকিস্তানি টিভি অ্যাংকর রেহাম খান ইমরানের স্ত্রী ছিলেন৷
অভিযোগের পাহাড়
নির্বাচনের ঠিক আগে আগে ইমরানের দ্বিতীয় স্ত্রী রেহাম খান তাঁর আত্মজীবনীতে ইমরানের বিরুদ্ধে বেশ কিছু গুরুতর অভিযোগ আনেন৷ রেহামের অভিযোগ, ইমরানের সঙ্গে যৌন সম্পর্কে জড়ালেই কেবল নারীরা দলে বড় পদ পেতে পারেন৷
পাকিস্তানের ট্রাম্প!
ইমরান খানকে অনেকেই পপুলিস্ট বলে আখ্যা দিয়ে থাকেন৷ জঙ্গিবাদের প্রতি তাঁর উদার দৃষ্টিভঙ্গীরও সমালোচনা করেন অনেকে৷ ধারণা করা হয় তালেবানের মতো বেশকিছু উগ্রপন্থি দলের সাথে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ রেখে চলেন ইমরান৷
অ্যামেরিকার সমালোচক
সন্ত্রাসবিরোধী যুদ্ধে অ্যামেরিকার ভূমিকা এবং তাতে পাকিস্তানের অংশগ্রহণের বড় সমালোচক ইমরান৷ পাকিস্তানের অনেক সমস্যার পেছনে দেশটির অ্যামেরিকাপ্রীতিই বড় কারণ বলে একাধিক বক্তব্যে বলেছেন তিনি৷
দুর্নীতিবিরোধী অবস্থান
দুর্নীতির বিরুদ্ধে বরাবরই সরব ইমরান খান৷ বিশেষ করে সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ ছিলেন তাঁর আক্রমণের মূল লক্ষ্য৷ লন্ডনে বাড়ি ক্রয় সংক্রান্ত দুর্নীতি মামলার সাজায় নওয়াজ শরীফ ও তাঁর মেয়ে মরিয়ম নওয়াজ এখন পাকিস্তানের কারাগারে আছেন৷
তরুণদের মন জয়
পাকিস্তানের তরুণদের মন দ্রুতই জয় করে নিয়েছেন ইমরান খান৷ তাঁর ‘নতুন পাকিস্তান’ স্লোগান তরুণ প্রজন্মের মুখে মুখে৷ ২০১২ সালে এশিয়া সোসাইটির জরিপে ‘এশিয়া’স পারসন অব দ্য ইয়ার’ নির্বাচিত হন ইমরান৷
তারিখ 04.09.2018